সরকারি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ১৮-৩০ বয়স – HSC পাশ – জাতীয় বেতন ৮২৫০ – ২০,০১০[জেলা কোটা আছে]

১৮-৩০ বয়স – HSC পাশ – জাতীয় বেতন ৮২৫০ – ২০,০১০[জেলা কোটা আছে]

সরকারি মন্ত্রনালয়ের অধীনে প্রশাসন – ১ এর অধিশাখায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিঃ

এসিস্ট্যন্ট পদের জন্য নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। বয়স ১৮ থেকে ৩০ এর মধ্যে হতে হবে। অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই। এটি একটি গ্রেড – ২০ এর জব সার্কুলার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এর জননিরাপত্তা বিভাগে এই জবের সার্কুলার এসেছে। সর্বমোট ১১ জন লোক নিয়োগ করা হবে এই পদের জন্য।

কোন ফি প্রদান করতে হবে কি?

হ্যা, এই সার্কুলারে আওতায় এইস এস সি পাশ জবের জন্য এপ্লাই করতে হলে ৫০ টাকার ফি প্রদান করতে হবে। এই টাকা টেলিটকের মাধ্যতে পে করতে হবে। তবে পেমেন্ট করার পুর্বে অনলাইনে আবেদন ফর্ম পুরন করে ইউজার আইডি গ্রহন করতে হবে। অনলাইনে ফর্ম ফিলাপ করা বাধ্যতামুলক। অনলাইনে ফর্ম ফিলাপ না করে কোন প্রকার পেমেন্ট না করার জন্য নির্দেশ জানানো হয়েছে। টেলিটকের মাধ্যমে ফি প্রদানের যাবতীয় নিয়ম কানুন  পুর্নাংগ বিজ্ঞপ্তি  তে পাবেন।

টেলিটকের মাধ্যমে যেভাবে ফি এর টাকা জমা দিবেনঃ

প্রথমাত অনলাইনে ফর্ম ফিলাপ করে ইউজার আইডি গ্রহন করতে হবে। তারপর, আপনার টেলিটক সিম থেকে,

(১) PSD লিখে স্পেস দিয়ে ইউজার আইডি লিখে সেন্ড করুন 16222 নাম্বারে।

(২) ফিরতি এসএমএসে পাবেন পিনকোড

(৩) PSD লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে সেন্ড করুন 16222 নাম্বারে।

প্রবেশপত্র পাবেন যেভাবেঃ

প্রবেশপত্র প্রকাশ হবার পর এখানে ক্লিক করে জানতে পারবেন। এছাড়া আবেদন করার সময় অনলাইন ফর্ম ফিলাপ কালে যে মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করেছিলেন সেই মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হবে।

আবেদন জমা এবং অন্যান্যঃ

বেতন হবে জাতীয় স্কেলে ৮২৫০ টাকা থেকে ২০,০১০ টাকা। সাথে সরকারি চাকরির যাবতীয় সুযোগ সুবিধা যুক্ত আছে অবশ্যই। আবেদন জমাদানের শেষ তারিখ ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের ৩০ তারিখ পর্যন্ত।

যারা বর্তমানে কোথাও না কোথাও কাজে নিয়োজিত আছেন, তারা যদি এই জবের জন্য এপ্লাই করতে চান তাহলে অবশ্যই সেইসব প্রতিষ্ঠান, যেখানে কর্মরত আছেন, সেখান থেকে অনুমতিপত্র সহ আবেদন করতে হবে। অন্যথা আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে। এছাড়া যে জেলার অধীনে আবেদন করবেন, সে জেলার বাসিন্দার প্রমাণ হিসেবে সনদ সাবমিট করতে হবে।

এই জবের জন্য আবেদন জমা দিতে চাইলে এখানে ক্লিক করে ফর্ম ফিলাপ করে সাবমিট করতে হবে। আর পুর্নাংগ বিজ্ঞপ্তির কপি দেখতে চাইলে এখানে ক্লিক করতে হবে।

সিলেকশন প্রকৃয়াঃ

প্রথমত লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তারপর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ন সকলের ভাইভা পরীক্ষা হবে। ভাইভাতে সিলেক্টেড হলে পরে নিয়োগপত্র প্রদান করা হবে। সকল সিলেকশন প্রকৃয়াতে কর্তৃপক্ষের সকল সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে বলে বিশেষভাবে উল্লেখ আছে।

আবেদনে সমস্যা দেখা দিলে যা করবেনঃ

অনলাইনে আবেদন ফর্ম ফিলাপের সময় যদি কোন প্রকার সমস্যা দেখা দেয় তাহলে আপনার টেলিটক নাম্বার থেকে ১২১ নাম্বারে কল করতে পারেন অথবা আপনার নিকটে যদি টেলিটকের কোন কাস্টমার কেয়ার থেকে থাকে তাহলে সেখানে গিয়ে যোগাযোগ করতে পারেন।

এছাড়া আরো কিছুঃ

প্রশ্ন থাকলে লিখুন ভাই/ বোন। জবাব দেয়ার সর্বত্তক চেষ্টা থাকবে
 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*